শিরোনাম
ইন্তেকাল করেছেন হেফাজত আমির আল্লামা আহমদ শফী মুক্তি পেয়েছে এলেক্স আব্দুস সালামের কথায় কাজী শুভর “পাখি “ মনপুরায় মেঘনায় ১২ কিলােমিটার এলাকায় গাছের খুঁটি বসিয়ে মাছ শিকারের সময় ট্রলারসহ আটক-১ পল্লীবন্ধুর স্বপ্ন পুরণে জাতীয় পার্টিকে সাংগঠনিকভাবে শক্তিশালী করতে হবে- জি এম কাদের। গনেশের অবৈধ নেটপাটা উচ্ছেদ করতে বাঁধা কোথায় ? সাতক্ষীরায় মাদকের ডোপ টেস্টে পজেটিভ ১৬ জন মাদকাসক্তকে আটক ইবি ছাত্র মৈত্রীর বই পাঠ ও সেরা লেখক প্রতিযোগিতার ফল প্রকাশ কাপাসিয়া সদর ইউপি চেয়ারম্যান সাখাওয়াত হোসেনের মাতা ফিরোজা বেগমের ইন্তেকাল সিংড়া বিনগ্রাম পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু চৌদ্দগ্রামে তৃণমূলের নেতাকর্মীদের সাথে যুবদলের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত
শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০১:২১ পূর্বাহ্ন

ইউএনও ওয়াহিদার অস্ত্রোপচার সম্পন্ন, অবস্থার কিছুটা উন্নতি

অনলাইন ডেস্ক / ৮২ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০

দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ওয়াহিদা খানমের অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৩ সেপ্টেম্বর) রাত ১১টা ৫মিনিটের দিকে তার অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হয়।
ঢাকার ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসাইন্স হাসপাতালের উপ-পরিচালক অধ্যাপক ডা. বদরুল আলম বিষয়টি গণমাধ্যমে নিশ্চিত করেছেন।
অধ্যাপক ডা. বদরুল আলম জানান, ইউএনও ওয়াহিদার অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হয়েছে। অস্ত্রোপচার শেষে তাকে আইসিইউতে অবজারভেসনে রাখা হয়েছে। আগের চেয়ে অবস্থা কিছুটা উন্নতি বলা যায়, তবে তিনি এখনো শঙ্কামুক্ত নন।
এর আগে রাত ৯টার দিকে তাকে অস্ত্রোপচারের জন্য হাসপাতালের অপারেশন থিয়েটারে নেওয়া হয়। অপারেশন থিয়েটারে নেওয়ার আগে তার সিটি স্ক্যান করা হয়েছে। প্রেশার চেক করে, অবস্থা স্বাভাবিক থাকায় তার অস্ত্রোপচারের সিদ্ধান্ত নেন চিকিৎসকরা।
এর আগে নিউরোসায়েন্স হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ওয়াহিদাকে দেখতে যান জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন। পরে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ওয়াহিদা খানমের সঙ্গে হাসপাতালে কথা বলেছি। এখন তার অবস্থা আগের চেয়ে অনেক ভালো। তবে তার প্রেসারটা আপ-ডাউন করছে।

প্রসঙ্গত, বুধবার দিনগত রাত আড়াইটার দিকে উপজেলা পরিষদ চত্বরে ইউএনও’র সরকারি বাসভবনে হামলা করে দুর্বৃত্তরা। প্রথমে গেটে দারোয়ানকে বেঁধে ফেলে তারা। পরে বাসার পেছনে গিয়ে মই দিয়ে উঠে ভেনটিলেটর দিয়ে বাসার ভেতরে প্রবেশ করে হামলাকারীরা।
ভেতরে ঢুকে ভারী ও ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে ও আঘাত করে ইউএনও ওয়াহিদাকে গুরুতর আহত করে। মেয়েকে বাঁচাতে এলে তার বাবা মুক্তিযোদ্ধা ওমর আলী শেখকে (৭০) জখম করে। পরে তারা অচেতন হয়ে পড়লে মৃত ভেবে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। ভোরে স্থানীয়রা টের পেয়ে তাদের উদ্ধার করেন।
তাদের আহত অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে ঘোড়াঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে রংপুরে পাঠানো হয়। ইউএনও ওয়াহিদা খানমকে রংপুর ডক্টরস ক্লিনিকে আইসিইউতে ও তার বাবাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য ওয়াহিদা খানমকে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে ঢাকায় পাঠানো হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

বাংলাদেশে কোরোনা

সর্বশেষ (গত ২৪ ঘন্টার রিপোর্ট)
আক্রান্ত
মৃত্যু
সুস্থ
পরীক্ষা
২,৯৪৯
৩৭
২,৮৬২
১৩,৪৮৮
সর্বমোট
১৭৮,৪৪৩
২,২৭৫
৮৬,৪০৬
৯০৪,৫৮৪