শিরোনাম
চিরিরবন্দরে ন্যায্যমুল্যে দুধ ও ডিম বিক্রির উদ্বোধন সাতক্ষীরায় বন্ধুকে জবাই করে হত্যা; গ্রেপ্তারকৃত সোহাগের আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি জাতীয় গণমাধ্যম সপ্তাহকে রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতির দাবীতে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান টাকা দিয়ে এক বছরেও ঘর মেলেনি ভূমিহীন ফাতেমার মাগুরায় আজ নতুন ১০জন করোনা রোগী শনাক্ত,জেলাতে মোট আক্রান্ত ১১৫৬ বেনাপোল সিমান্তে ইয়াবাসহ চোরাকারবারি আটক কাপ্তাই হ্রদের পানিতে ফুল ভাসিয়ে নতুন বছরকে স্বাগত জানিয়েছে রাঙামাটির পাহাড়ি জনগোষ্ঠী সর্বাত্মক লকডাউনের প্রজ্ঞাপন জারি বাঘা থানার ওসির ব্রেইন টিউমারের অস্ত্র পাচার সম্পূর্ণ আসতে পারে সাধারণ ছুটি!
সোমবার, ১২ এপ্রিল ২০২১, ০৬:১৬ অপরাহ্ন

গুনারীতলা ইউপি নির্বাচন- আলোচনায় জনপ্রিয়তায় আ.লীগ নেতা মোস্তাফিজুর রহমান সাজু

মাদারগঞ্জ প্রতিনিধি / ৮৮ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : সোমবার, ২২ মার্চ, ২০২১

দিন যতই যাচ্ছে ততই ঘনিয়ে আসছে (স্থানীয় সরকার) ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন। তফসিল ঘোষণার অনেকদিন বাকী থাকলেও প্রার্থীরা ব্যানার,পোস্টার ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে আগাম প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে তাদের নিজ নিজ অবস্থান জানান দিচ্ছেন। জামালপুরের মাদারগঞ্জ উপজেলার ০৩নং গুনারীতলা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আলোচনায় ও জনপ্রিয়তায় এগিয়ে রয়েছেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র যুগ্ম – সাধারণ সম্পাদক সাবেক ছাত্রনেতা মোস্তাফিজুর রহমান পারভেজ সাজু।

পরিশ্রমী আওয়ামী এই নেতার রয়েছে দীর্ঘ রাজনৈতিক ইতিহাস। ১৯৭৫ এর ধকল সামলিয়ে উঠে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে যখন সারাদেশে স্বৈরাচার বিরোধী গণতান্ত্রিক আন্দোলন গড়ে ওঠে ঠিক সেই সময় (আশির দশকের মাঝামাঝি) মাদারগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের একজন সার্বক্ষণিক কর্মী হিসাবে তিনি সক্রিয় ভুমিকা পালন করেন। জেল, জুলুম, হুলিয়া, অত্যচার-নির্যাতন ছিল তখন নৈমিত্তিক ঘটনা। তারুণ্যে উদ্দীপ্ত একঝাক ছাত্র-বন্ধু সংগঠনকে শক্তিশালী ভিত্তির উপর দাঁড় করাতে নিরলসভাবে কাজ করেন এবাদতের মত মনোযোগ দিয়ে। সাজু ছিলেন তাদের মধ্যে অন্যতম একজন। ১৯৮৮ সালে মাদারগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি, ১৯৯১ সালে উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক নির্বাচিত হন। ২০০৩ ও সর্বশেষ ২০১৫ সালে উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়ে নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন যাচ্ছেন। সেই সাথে গুনারীতলা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সমন্বয়কের দায়িত্ব করছেন।

রাজনীতির পাশাপাশি একাধিক সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের সাথে যুক্ত তিনি। গুনারীতলা ইউনিয়নবাসীর সেবা করার লক্ষে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী তিনি। চান বাংলাদেশ নৌকা মার্কার মনোনয়ন। প্রার্থীতা প্রকাশ করার পর থেকেই গুনারীতলা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ নেতার্কমী ও সাধারণ ভোটারদের মাঝে ব্যপক সাড়া পাচ্ছেন তিনি। গুনারীতলা ইউনিয়নে ছাত্র নেতা থেকে শুরু আওয়ামীলীগ নেতাদের অনেকেই তার কথা বলছেন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক গুনারীতলা ইউনিয়নস্থ উপজেলা তাঁতীলীগের এক নেতা বলেন, সাজু ভাই বহুদিন ধরেই আওয়ামীলীগ করতেছে চাইলে জীবনে অনেক কিছু করতে পারতো। কিন্তু তা করেননি। রাজনৈতিক বেকগ্রাউন্ড বিবেচনা করে তাকে এবার নৌকা মার্কার মনোনয়ন দেওয়ার দাবি জানাই।

একাধিক ছাত্র,যুব,সেচ্ছাসেবক,শ্রমিক,কৃষক তাঁতী ও আ.লীগের নেতার্কমীদের সাথে কথা বলে জানা গেছে , তারা চেয়ারম্যান পদে দলীয় মনোনয়ন প্রসঙ্গে সাজুকেই চাচ্ছে। হাটবাজার,মোড়গুলোতে হোটেল ও চা – স্টলে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন নিয়ে আলাপ চারিতায় ভেসে উঠসে সাজু পারভেজের নাম। অনেকেই বলছে গুনারীতলার চেয়ারম্যান এবার সাজুই। নৌকার মার্কার মনোনয়ন প্রসঙ্গে সাজু পারভেজ বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় কার্য নির্বাহী কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক, মেলান্দহ – মাদারগঞ্জ থেকে ০৬ বারের নির্বাচিত সাংসদ, জামালপুরের ২৬ লক্ষ মানুষের অভিভাবক সাবেক বস্ত্র ও পাট প্রতিমন্ত্রী কর্মবীর জননেতা আলহাজ্ব মির্জা আজম এমপির নিকট আমার পূর্ণ আস্থা ও বিশ্বাস রয়েছে।

আমি মনে করি তিনি আমাকে যোগ্য মনে করে অবশ্যই নৌকার মনোনয়ন দিবেন। আর নৌকা প্রতীকে নির্বাচন করে আমি বিপুল ভোটে নির্বাচিত হওয়ার পর ইউনিয়নবাসীর সেবায় সার্বক্ষণিক নিজেকে নিয়োজিত রাখতে চাই। এ জন্য গুনারীতলা ইউনিয়নবাসীর দোয়া ও সহযোগীতা কামনা করছি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

বাংলাদেশে কোরোনা

সর্বশেষ (গত ২৪ ঘন্টার রিপোর্ট)
আক্রান্ত
মৃত্যু
সুস্থ
পরীক্ষা
সর্বমোট