শিরোনাম
ইন্তেকাল করেছেন হেফাজত আমির আল্লামা আহমদ শফী মুক্তি পেয়েছে এলেক্স আব্দুস সালামের কথায় কাজী শুভর “পাখি “ মনপুরায় মেঘনায় ১২ কিলােমিটার এলাকায় গাছের খুঁটি বসিয়ে মাছ শিকারের সময় ট্রলারসহ আটক-১ পল্লীবন্ধুর স্বপ্ন পুরণে জাতীয় পার্টিকে সাংগঠনিকভাবে শক্তিশালী করতে হবে- জি এম কাদের। গনেশের অবৈধ নেটপাটা উচ্ছেদ করতে বাঁধা কোথায় ? সাতক্ষীরায় মাদকের ডোপ টেস্টে পজেটিভ ১৬ জন মাদকাসক্তকে আটক ইবি ছাত্র মৈত্রীর বই পাঠ ও সেরা লেখক প্রতিযোগিতার ফল প্রকাশ কাপাসিয়া সদর ইউপি চেয়ারম্যান সাখাওয়াত হোসেনের মাতা ফিরোজা বেগমের ইন্তেকাল সিংড়া বিনগ্রাম পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু চৌদ্দগ্রামে তৃণমূলের নেতাকর্মীদের সাথে যুবদলের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত
শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০২:৪১ পূর্বাহ্ন

চরম ভোগান্তিতে দারুল আরকাম মাদ্রাসার ফলাফল প্রত্যাশিরা

রিপোটারের নাম / ২৬১৪ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ১১ ফেব্রুয়ারী, ২০২০

মুহা. জহিরুল ইসলাম অসীম, সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টারঃ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলদেশ সরকারের ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অধীনে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের পরিচালনায় মসজিদভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম প্রকল্পের (৬ষ্ঠ পর্যায়, যার মেয়াদ ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৯ পর্যন্ত।) আওতায় দারুল আরকাম মাদরাসার প্রতিষ্ঠা করা হয়।

জাতির পিতা শেখ মুজিবের হাতে গড়া ইসলামিক ফাউণ্ডেশন এর বাস্তবায়নাধীন মসজিদভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম (৬ষ্ঠ পর্যায়) প্রকল্পের আওতায় সারাদেশের ৬৪ জেলার ৫০৫টি উপজেলা/জোনে দুটি করে মোট ১০১০টি দারুল আরকাম ইবতেদায়ি মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে।

উক্ত প্রতিষ্ঠানে শিক্ষক নিয়োগ দেওয়ার জন্য প্রথম ধাপে শিক্ষক নিয়োগ দেয় প্রতিষ্ঠানটি। পরবর্তীতে আরো ১০১০জন সাধারণ শিক্ষক (বাংলা,ইংরেজি) নিয়োগের জন্য প্রথমে লিখিত ও পরে মৌখিক পরীক্ষা নেয়া হয়।

১ম শ্রেণি থেকে ৫ম শ্রেণি পর্যন্ত এই মাদ্রাসার উক্ত ফলাফল প্রকাশ না করেই তার কিছুদিন পর আবারও ১০১০ জন করে মোট ২০২০ জন শিক্ষক নিয়োগ দেওয়ার (আলিয়া ও কওমি নেসাবের) জন্য বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে গত ২০১৮ সালের মে মাসের দিকে প্রকল্প পরিচালকের যুগ্ম-সচিব জুবায়ের আহমেদ স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে। যেখানে বলা হয় সম্পূর্ণ অস্থায়ীভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে।

পরে গত ১৯/১০/২০১৮ইং তারিখে লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয় এবং গত ১৪ই জানুয়ারি ২০১৯ তারিখ লিখিত পরীক্ষার ফলাফল দিয়ে মৌখিক পরীক্ষার জন্য ডাকা হয়। এবং ২১-০১-২০১৯ইং তারিখ যথারীতি ভাইবা অনুষ্ঠিত হয়।

কিন্তু দুঃখের বিষয় প্রায় ০২( দুই ) বছর পার হয়ে গেলেও ফলাফল প্রকাশ করছেনা প্রতিষ্ঠানটি। এরি মধ্যে প্রকল্পের মেয়াদ শেষ হয়ে গিয়েছে। কিন্তু অদ্যবদি ০৩ (তিন) গ্রুপের মৌখিক পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ ও শিক্ষক নিয়োগ করা হয়নি। এখন দেশের কওমি ও আলিয়া মাদ্রাসার যেসব প্রার্থীরা আবেদন করেছে তারা হাই কোর্টে রিট করার জন্য একটা সংঘটিত কমিটি গঠন করেছে।

যথা সময়ে ফলাফল প্রকাশ না করায় ফলাফল প্রত্যাশিরা বলছেন, আমরা খুবই মানবেতর জীবনযাপন করছি। এছাড়াও দারুল আরকাম মাদ্রাসার অপূরণীয় যে ক্ষতিগুলো হয়েছে তা হলো, চলমান প্রকল্প প্রথম শ্রেণি হতে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত প্রতিষ্ঠানে ৫ জন শিক্ষক-শিক্ষিকা থাকার কথা থাকলেও বর্তমানে দুইজন রয়েছে আবার চলমান প্রকল্পের শিক্ষক-শিক্ষিকা না থাকায় পঞ্চম শ্রেণীর শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় প্রায় ৮০% এর বেশি প্রতিষ্ঠান থেকে সমাপনী পরীক্ষা ২০১৯ ইং এ অংশগ্রহণ করাতে পারেনি এবং সপ্তম পর্যায়ে প্রকল্প ১লা জনুয়ারি ২০২০ ইং শিক্ষাবর্ষ প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক – শিক্ষিকা নিয়োগ না দিলে কোন অভিভাবক ইসলামিক ফাউন্ডেশন দারুল আরকাম ইবতেদায়ী মাদ্রাসা শিক্ষার্থী ভর্তিও করাবে না বলে ধারণা করা হচ্ছে, ইসলামিক ফাউন্ডেশন এর কারণে দারুল আরকাম ইবতেদায়ী মাদ্রাসা বন্ধ হলে প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা এর মান ক্ষুন্ন হবে এবং প্রধানমন্ত্রীর প্রতি মানুষের আস্থা কমে যাবে। মাদ্রাসাটি মাত্র দুই বছরের মাথায় ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের অবহেলা, অব্যবস্থাপনাধর্ম মন্ত্রণালয় ও ইসলামিক ফাউন্ডেশন এর সমন্বয়হীনতা ইত্যাদি কারণে অস্তিত্বের সংকটে পড়েছে প্রতিষ্ঠান জমিদাতা ও শিক্ষার্থীদের অভিভাবক দেখার কেউ নাই।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

বাংলাদেশে কোরোনা

সর্বশেষ (গত ২৪ ঘন্টার রিপোর্ট)
আক্রান্ত
মৃত্যু
সুস্থ
পরীক্ষা
২,৯৪৯
৩৭
২,৮৬২
১৩,৪৮৮
সর্বমোট
১৭৮,৪৪৩
২,২৭৫
৮৬,৪০৬
৯০৪,৫৮৪