শিরোনাম
ইন্তেকাল করেছেন হেফাজত আমির আল্লামা আহমদ শফী মুক্তি পেয়েছে এলেক্স আব্দুস সালামের কথায় কাজী শুভর “পাখি “ মনপুরায় মেঘনায় ১২ কিলােমিটার এলাকায় গাছের খুঁটি বসিয়ে মাছ শিকারের সময় ট্রলারসহ আটক-১ পল্লীবন্ধুর স্বপ্ন পুরণে জাতীয় পার্টিকে সাংগঠনিকভাবে শক্তিশালী করতে হবে- জি এম কাদের। গনেশের অবৈধ নেটপাটা উচ্ছেদ করতে বাঁধা কোথায় ? সাতক্ষীরায় মাদকের ডোপ টেস্টে পজেটিভ ১৬ জন মাদকাসক্তকে আটক ইবি ছাত্র মৈত্রীর বই পাঠ ও সেরা লেখক প্রতিযোগিতার ফল প্রকাশ কাপাসিয়া সদর ইউপি চেয়ারম্যান সাখাওয়াত হোসেনের মাতা ফিরোজা বেগমের ইন্তেকাল সিংড়া বিনগ্রাম পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু চৌদ্দগ্রামে তৃণমূলের নেতাকর্মীদের সাথে যুবদলের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত
শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০১:৪৯ পূর্বাহ্ন

৫২ লক্ষ টাকা তুলে নিল ৫ লাখ টাকার মেরামত কাজ করেই

রিপোটারের নাম / ১৩৯ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ২৪ জুলাই, ২০২০

৫২ লক্ষ টাকা তুলে নিল ৫ লাখ টাকার মেরামত কাজ করেই।
কালুরঘাট সেতু মেরামতের নামে বিপুল পরিমাণ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশন ও রেলপথ মন্ত্রণালয়ে চিঠি দিয়েছেন আইনজীবী সেলিম চৌধুরী।
মঙ্গলবার (২১ জুলাই) সকালে রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের মহাব্যবস্থাপক (অতিরিক্ত দায়িত্ব) সরদার সাহাদাত আলী বরাবরও চিঠি দিয়ে তিনি এর প্রতিবাদ জানান।

সেলিম চৌধুরী চিঠিতে উল্লেখ করেন, সারাদেশের সঙ্গে দক্ষিণ চট্টগ্রামের রেল যোগাযোগের একমাত্র মাধ্যম কালুরঘাট সেতু। রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ মেরামতের নামে ৫২ লাখ টাকা বরাদ্দ করে। দরপত্র অনুযায়ী ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান ‘এবি কনস্ট্রাকশন’ কাজটি পেয়েছে।
কার্যাদেশ অনুযায়ী সেতুটি মেরামতের জন্য ১৩-২৩ জুলাই ১০ দিন যানবাহন চলাচলে নিষেধাজ্ঞা দেয় রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ।
কিন্তু গণমাধ্যমে খবর বের হয় ১৩-১৯ জুলাই কোনো কাজই হয়নি। বরাদ্দকৃত অর্থ লুটে খাওয়ার জন্য সেতু বন্ধ রাখার বিজ্ঞপ্তি দিয়ে মানুষকে বিভ্রান্ত করা হচ্ছে। ২০ জুলাই থেকে লোকদেখানো কিছু কাজ হচ্ছে। স্থানীয়দের অভিযোগ বরাদ্দকৃত টাকার মধ্যে ৫-৭ লাখ টাকা খরচ হবে। বাকি টাকা রেলওয়ের প্রকৌশল বিভাগ ও ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের যোগসাজশে আত্মসাৎ করার প্রচেষ্টা চলছে বলে আইনজীবী সেলিম চৌধুরী উল্লেখ করেন।
সেলিম চৌধুরী বাংলানিউজকে বলেন, মাত্র ৫ লাখ টাকা খরচ করে বাকি টাকা ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ও রেলওয়ের প্রকৌশল বিভাগ আত্মসাৎ করার চেষ্টায় লিপ্ত। আমি এ বিষয়ে পূর্বাঞ্চলের মহাব্যবস্থাপককে বলেছি। তিনি বিষয়টি তদন্ত করে দেখবেন বলেছেন।
তিনি বলেন, চিঠির অনুলিপি দুর্নীতি দমন কমিশন ও রেলপথ মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছি। প্রয়োজনে এ বিষয়ে আমি আদালতেও যাবো। কারণ কালুরঘাট সেতুর সঙ্গে লাখ লাখ মানুষের সম্পৃক্ততা রয়েছে।
৫২ লাখ টাকাতো কম, ১০ কোটি টাকা দিয়েও কাজ করছে
অভিযোগের বিষয়ে রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের প্রধান প্রকৌশলী মো. সবুক্তগীন বাংলানিউজকে বলেন, আমরাতো পুরো ব্রিজের কাজ করতে পারবো না। কালুর ঘাট সেতুতে যেখানে সংস্কার প্রয়োজন সেখানে মেরামত করা হচ্ছে।
তিনি বলেন, ১০ বছর আগে এ সেতুর কাজ করছিলো ১০ কোটি টাকা দিয়ে। ৫২ লাখ টাকাতো অনেক কম। এরপরও যেহেতু অভিযোগ আসছে, এ বিষয়ে তদন্ত করা হবে। একচুল পরিমাণও ছাড় দেওয়া হবে না।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

বাংলাদেশে কোরোনা

সর্বশেষ (গত ২৪ ঘন্টার রিপোর্ট)
আক্রান্ত
মৃত্যু
সুস্থ
পরীক্ষা
২,৯৪৯
৩৭
২,৮৬২
১৩,৪৮৮
সর্বমোট
১৭৮,৪৪৩
২,২৭৫
৮৬,৪০৬
৯০৪,৫৮৪