সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৫৪ অপরাহ্ন

  • বাংলা বাংলা English English
অসহায় বৃদ্ধার পাশে সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দিলেন নেত্রকোণার জেলা প্রশাসক
নেত্রকোণা থেকে মুহা. জহিরুল ইসলাম অসীম / ১৫ Time View
Update : সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১

সহায় সম্বলহীন ও দৃষ্টি প্রতিবন্ধী বৃদ্ধা ময়নার মা অনাহারে অর্ধাহারে শরীরের শক্তি সামর্থ্য হারিয়ে আশ্রয় নিয়েছেন নেত্রকোণা বড় বাজার সোনালী ব্যাংক সংলগ্ন হিন্দু উপাসনালয় আখড়ায়।

শারীরিক ও মানসিক অবস্থা ভালো না থাকায় খাওয়া-দাওয়ায় প্রতি নেমে এসেছে অভক্তি। শারীরিক দূর্বলতার কারণে সোজা হয়ে দাঁড়ানোর সামর্থ্য হারিয়েছে অনেক আগেই। বৃদ্ধা ময়নার মার নেই কোন নিরাপদ সামাজিক আশ্রয়স্থল। উপাসনালয়ে আরতী শেষে বিতরণের প্রসাদ খেয়েই জীবনী শক্তি ধরে রেখেছেন তিনি।

জানা যায়, স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় পাক বাহিনীর হাতে স্বামী নিহত হওয়ার পর দুই ছেলে ও এক মেয়েকে নিয়ে আশ্রয় নেয় নেত্রকোণা শহরের পুরাতন সাব-রেজিষ্ট্রি অফিসের পাশে কোন এক ভাড়ার বাসায়। পরবর্তী সময়ে নাগড়া শিববাড়ী রোড এলাকায় সুজিত সরকারের পিতা মৃত নরেন্দ্র সরকারের নিকট থেকে জায়গা ক্রয় করে সেখানে টিনসেড বাড়ী নির্মাণ করে বসবাস করতেন ময়নার মা। ময়নার মায়ের এক ছেলে মৃত্যুবরণ করেন। অন্য ছেলে হয়ে যান নিরুদ্দেশ।

মেয়েকে বিয়ে দিয়েছিলেন টাঙ্গাইল জেলার মধুপুরে। কিছুদিন পূর্বে মেয়ের স্বামী মৃত্যুবরণ করলে স্বামী হারা মেয়ে অসুস্থ ও দৃষ্টিহীন হয়ে পড়ে।

ইত:মধ্যে ময়নার মায়ের বাড়ীতে প্রবেশ পথ বন্ধ করে দেয় প্রতিবেশী মৃত নরেন্দ্র সরকারের ছেলে সুজিত সরকার। দীর্ঘদিন ধরে বাড়ীতে প্রবেশ করতে না পেরে বাড়ীটি ভেঙ্গে পরিত্যাক্ত অবস্থায় পড়ে রয়েছে। স্বামী-সন্তান, বাড়ী এবং সহায় সম্বল হারিয়ে নি:স্ব-রিক্ত অবস্থায় দীর্ঘদিন যাবৎ পথে পথে ঘুরছিলেন অসহায় ময়নার মা।

শারীরিক শক্তি-সামর্থ্য হারিয়ে প্রায় তিন মাস যাবৎ আশ্রয় নিয়েছেন নেত্রকোণা বড় বাজার সোনালী ব্যাংক সংলগ্ন হিন্দু উপাসনালয় আখড়ায়।

আখড়ার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অসিত কুমার সাহা বলেন, প্রায় তিন মাস যাবৎ ময়নার আখড়ায় থাকেন। তিনি চলাফেরা করতে না পারায় স্বাভাবিক ভাবেই তার শরীর এবং কাপড়-চোপড় অপরিস্কার থাকে। ময়নার মায়ের নিরাপদ আশ্রয়ের জন্য আমরা মন্দির কমিটির লোকজন বেশ উদ্বিগ্ন।

নেত্রকোণা জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপ পরিচালক মোঃ আলাল উদ্দিনের মাধ্যমে ময়নার মায়ের অসহায়ত্বেও খবর পেয়ে নেত্রকোণা জেলার মানবিক জেলা প্রশাসক কাজী মোঃ আবদুর রহমান শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টায় ছুটে যান নেত্রকোণা বড় বাজার সোনালী ব্যাংক সংলগ্ন হিন্দু উপাসনালয় আখড়ায়। তিনি সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দেন অসহায় ময়নার মায়ের প্রতি। সঙ্গে নিয়ে যান ময়নার মায়ের জন্য দ্ইুটি নতুন শাড়ী, গামছা, বেডশীড, বালিশ, কম্বল, কয়েকটি সাবান ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার।

তিনি অসহায় মহিলাকে সব ধরনের সহযোগীতার আশ্বাস প্রদান করেন। জেলা প্রশাসক কাজী মোঃ আবদুর রহমান উপহার সামগ্রী নিয়ে অসহায় ময়নার মায়ের সামনে দেবদুতের মতো হাজির হওয়ায় আবেগে আপ্লুত হয়ে পড়েন তিনি। এসময় নেত্রকোণা শিশু পরিবারের উপ তত্ত্বাবধায়ক তারেক হোসাইন, মন্দির কমিটির লোকজন উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
জনপ্রিয় সংবাদ
সর্বশেষ সংবাদ