বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২:১৬ অপরাহ্ন

  • বাংলা বাংলা English English
তালার জালালপুরে ইউপি নির্বাচনপূর্ব সহিংসতা, আহত-৫
তালা (সাতক্ষীরা) থেকে এসএম বাচ্চু / ৩৬ Time View
Update : বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

তালা উপজেলার জালালপুর ইউনিয়নে আওয়ামীলীগ চেয়ারম্যান প্রার্থী রবিউল ইসলাম মুক্তির কর্মী-সমর্থকদের হামলায় স্বতন্ত্র প্রার্থী মফিদুল হক লিটুর ৫ কর্মী আহত হয়েছে।এসময় দোকান ঘর ভাংচুর ও লুটপাট করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে তালা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

মঙ্গলবার (৭সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় উপজেলার জালালপুর ইউনিয়নের আটুলিয়াবাজারে এ হামলার ঘটনা ঘটে। গুরুত্বর আহত ৪জনকে তালা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। আহত ব্যক্তিরা হলেন,আটুলিয়া গ্রামের মশিয়ার সরদার(৩৬),দোহার গ্রামের সাইদ গোলদার(৪০)একই গ্রামের রবিউল ইসলাম সানা(৩৭), গোলদার আবু সাইদ (৪২)। এছাড়া আহত আটুলিয়া গ্রামের ময়নুর মোড়ল(৩০) প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়িতে আছেন।

আহত ও স্থানীয় সুত্রে জানাযায়, উপজেলার জালালপুর ইউনীয়নের আটুলিয়া বাজারে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগ প্রার্থী রবিউল ইসলাম মুক্তির কর্মী সমার্থক মকবুল বেয়ারা,সাদেক ও মোশারফের নেতৃত্বে ২০ থেকে ২৫ জনের হাতুড়ি বাহিনী নিয়ে বাজারে মহড়া দিতে থাকেন।বাজারের পশ্চিম পাশের্^ রাস্তার উপর স্বতন্ত্র প্রার্থী এম মফিদুল হক লিটুর আনারস প্রতিকের ব্যানার ও পোষ্টার ঝুলানো দেখে তা ছিড়ে ফেলে দেয়।এসময় রাস্তার পাশে থাকা মুদি ও চা দোকানি রবিউল ইসলামকে আনারসের সমার্থক বলে তার দোকানে হামলা করে।

হামলাকারিরা লোহার হাতুরি দিয়ে বেধড়ক পিটিয়ে রবিউলকে গুরত্ব আহত করে। এ ঘটনায় স্থানীয় যুবক মশিয়ার সরদার দোকানদার রবিউলকে বাঁচাতে গেলে তাকেও পিটিয়ে আহত করা হয়েছে।্ এসময় হামলাকারীরা রবিউলের দোকানঘর ভাংচুরসহ লুটপাট কর নিয়ে যায়।

আহত মশিয়ার সরদার বলেন,সন্ধ্যায় রবিউলের দোকানে চা খেতে যান তিনি।এসময় মকবুল বেয়ারা,সাদেক ও মোশারফের নেতৃত্বে ২০ থেকে ২৫ জন নৌকা প্রার্থীর কর্মী সমার্থকরা শ্লোগান দিতে দিতে রবিউলের দোকানের সামনে রাস্তার উপর জড়ো হয়। তারা রাস্তার উপর ঝুলানো আনারস প্রতিকের ব্যানার ও পোষ্টার ছিড়ে ফেলে দেয়। পরে কোন কিছু বুঝে উঠার আগে রবিউলের দোকানে হামলা করে।তারা রবিউলকে লোহার হাতুরি,রড দিয়ে বেধড়ক পিটাতে থাকে।তিনি দোকানি রবিউলকে ঠেকাতে গেলে তাকেও লোহার হাতুরি,রড দিয়ে পিটিয়ে আহত করে। এ সময় বাজারে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। হামলার ঘটনার সাথে জড়িত ব্যক্তিদের শাস্তির দাবি করেন তিনি।

এবিষয়ে আনারস প্রতিকের স্বতন্ত্র প্রার্থী এম মফিদুল হক লিটু এপ্রতিবেদককে জানান, এলাকায় নৌকা মার্কার প্রার্থীর কোন জন সমার্থন নেই।গত নির্বাচনেও তিনি পরাজিত হয়েছিলেন।এবারও নিশ্চিত পরাজয় যেনে নৌকা প্রার্থীর সন্ত্রাসী হাতুরি বাহিনীর ক্যাডাররা গতকাল সন্ধ্যায় আটুলিয়া বাজারে তার কর্মী সমর্থকদের উপর অতর্কিত হামলা চালিয়েছে। এছাড়া রাতের আধারে পোষ্টার, ব্যানার ছিড়ে ফেলা হচ্ছে এবং এলাকায় ত্রাস সৃষ্টি করা হচ্ছে। প্রতিদিন তার সন্ত্রাসী ক্যাডার বাহিনী মটর সাইকেল মহড়া দিয়ে শান্ত এলাকাকে অশান্ত করে তুলছেন বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

এঘটনার তীব্রনিন্দা জানিয়ে তিনি ঘটনার সাথে জড়িতোদের শাস্তির দাবি ও নির্বাচন পূর্ববর্তী এলাকায় শান্তি শৃংখলা বজায় রাখতে প্রশাসনের আশু হস্থক্ষে কামনা করেছেন।

অভিযোগ অস্বীকার করে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ও নৌকা মার্কার প্রার্থী রবিউল ইসলাম মুক্তি এপ্রতিবেদককে জানান,নিশ্চিত পরাজয় জেনে স্বতন্ত্র প্রার্থী এম মফিদুল হক লিটুর কর্মী সমার্থরা নিজেরাই এহেন পরিস্থিতির করে নৌকার কর্মী সমার্থদের উপর দোষ চাপানোর অপচেষ্টা চালাচ্ছে। তার কর্মী-সমর্থকেরা শান্তি পূর্ণভাবে ভোটারদের কাছে ভোট প্রার্থনা করছে। তার কর্মী-সমর্থকেরা মহড়া দেয়নি বা কাউকে হামলা করেনি বলেও জানান তিনি।

তালা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মেহেদী রাসেল বলেন, হামলার বিষয়ে লিখিত কোন অভিযোগ পাননি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। নির্বাচনে কোনো সন্ত্রাসী কর্মকানড চলতে দেওয়া হবে না। আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় সব ধরনের পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
জনপ্রিয় সংবাদ
সর্বশেষ সংবাদ