বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২, ০৯:০৮ পূর্বাহ্ন

  • বাংলা বাংলা English English
প্রতিদিন মুড়ি খেলে কী হয়?
লাইফস্টাইল ডেস্ক / ৮৪ Time View
Update : বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২
ছবি: সংগৃহীত

ভাতের পরে যদি কোনো খাবার সব বাঙালি বাড়িতে খাওয়া হয়, সেটি হলো মুড়ি। রুটিও কিন্তু এত বেশি খাওয়া হয় না, যতটা মুড়ি খাওয়া হয়। প্রতিদিনের খাবারের কোনো না কোনো অংশে মুুড়ি থাকেই। চায়ের সঙ্গে মুড়ি, দুধের সঙ্গে মুড়ি, চানাচুরের সঙ্গে মুড়ি। অনেকে তো মাংসের ঝোলের সঙ্গেও মুড়ি মিশিয়ে খেতে পছন্দ করেন!

মুড়ির জনপ্রিয়তার কারণে শুধু মুড়িমাখারই অসংখ্য দোকান গড়ে উঠছে। রাস্তার ধারে বিক্রি হওয়া ঝালমুড়ির কথা তো বাদই দিলাম। মুড়ি ভাজার বিষয়টি অনেক গ্রামে এখনও উৎসবের মতো। চুলার পাশে বসে গরম গরম মুড়ি ভাজা খাওয়ার মজাই আলাদা। বেশিরভাগ বাড়িতে বিকেলের নাস্তার সঙ্গে থাকে মুড়ি। মুড়ি দিয়ে তৈরি করা যায় নানা স্বাদের মিষ্টান্নও।

প্রতিদিন মুড়ি খান, মুড়ি উপকারী তো? মুড়ি খাওয়া কি স্বাস্থ্যের পক্ষে ভালো? ইউরিক অ্যাসিড বেড়ে যাওয়ার ভয়ে অনেকে মুড়ি খাওয়া কমিয়ে দেন বা বন্ধ করে দেন। সত্যিটা বললে, মুড়ির গুণ কিন্তু কম নয়! আপনি যদি প্রতিদিন মুড়ি খান তবে ক্ষতির বদলে লাভই কিন্তু বেশি। জেনে নিন মুড়ি খেলে কী উপকারিতা মিলবে-

অ্যাসিডিটির সমস্যা কমায়

বর্তমানে অ্যাসিডিটির সমস্যায় ভুগছেন না এমন কাউকে খুঁজে পাওয়া মুশকিল। কারণ অতিরিক্ত মশলাদার খাবার, ভাজাপোড়া, বাইরের খাবার এসব অ্যাসিডিটির সমস্যা বাড়িয়ে দেয় কয়েকগুণ। আপনি যদি নিয়মিত মুড়ি খাওয়ার অভ্যাস করেন তবে কমবে অ্যাসিডিটির সমস্যা। কারণ মুড়ি খেলে তা পেটে অ্যাসিডের ক্ষরণে ভারসাম্য আনতে সাহায্য করে। অ্যাসিডিটির সমস্যা যদি বেশি বেড়ে যায় তবে পানিতে মুড়ি ভিজিয়ে খেতে পারেন। এতে সমস্যা কমবে দ্রুতই।

ওজন নিয়ন্ত্রণ করে

মুড়িতে ক্যালোরির পরিমাণ খুবই কম থাকে। আপনার যদি অল্প অল্প ক্ষুধা পায় তবে মুড়ি খেয়েই পেট ভরানো সম্ভব। এতে বাড়তি ক্যালোরি যোগ হওয়ার ভয় থাকে না। ফলে কমে ওজন বৃদ্ধির বয়সও। তাই যারা হালকা নাস্তা হিসেবে মুড়ি খান, তাদের ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখা সহজ হয়।

রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখে

রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখার বিকল্প নেই। কারণ রক্তচাপ বেড়ে গেলে নানা শারীরিক সমস্যা ডেকে আনে। আপনি যদি প্রতিদিন মুড়ি খান তবে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখা সহজ হবে। কারণ এতে সোডিয়ামের মাত্রা থাকে কম। তাই মুড়ি খাওয়ার পর তা পেট ভরিয়ে রাখলেও রক্তচাপ বেড়ে যাওয়ার ভয় থাকে না।

হাড় শক্ত করে

আমাদের সুস্থ থাকার জন্য হাড় ভালো রাখা জরুরি। কারণ হাড়ে কোনো ধরনের সমস্যা দেখা দিলে তা ভোগান্তি বাড়িয়ে দেয়। আর এই হাড় ভালো রাখতে সাহায্য করে ক্যালসিয়াম ও আয়রন। এই দুই উপাদান যথেষ্ট পাওয়া যাবে মুড়িতে। তাই নিয়মিত মুড়ি খেলে আর হাড়ের সমস্যায় ভুগতে হবে না। এটি হাড় শক্ত করতে সাহায্য করবে।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
জনপ্রিয় সংবাদ
সর্বশেষ সংবাদ