বুধবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ০১:৪৫ অপরাহ্ন

  • বাংলা বাংলা English English
বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণের প্রশংসা বিএনপির আলালের
এবি ডেস্ক রিপোর্ট / ৩২ Time View
Update : বুধবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২১

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ই মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণের প্রশংসা করেছেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল। তবে এ ভাষণে দেশ স্বাধীন হয়নি বলে দাবি করেন তিনি।

সোমবার (২৫ অক্টোবর) রাজধানীর ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে (ডিআরইউ) ‘ভোটারবিহীন নির্বাচন বন্ধ, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে নেতাকর্মীদের করণীয়’ শীর্ষক আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন আলাল।

এসময় বিএনপির এ যুগ্ম মহাসচিব বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণটি ভালো, এতে কোনো সন্দেহ নেই। কিন্তু সেই ভাষণে দেশ স্বাধীন হয়ে যায়নি। দেশ স্বাধীন হয়েছে যুদ্ধের মাধ্যমে।’

জাতীয়তাবাদী মুক্তিযুদ্ধের প্রজন্ম আয়োজিত অনুষ্ঠানে আলাল দুর্গাপূজা ও পরবর্তী সময়ে হিন্দু সম্প্রদায়ের উপর হামলার ঘটনায় সরকারকে দায়ী করেন।

তিনি বলেন, ‘দুর্গাপূজায় এবং এখনও যেসব ঘটনা ঘটছে এগুলোর জন্য আওয়ামী লীগ দায়ী।’

ই-কমার্স ইস্যুতে সরকারের সমালোচনা করে তিনি বলেন, সরকারের মন্ত্রীরা বলছেন, ই-কমার্সের দায় নেবেন না তারা। ই-কমার্স মানুষের কত টাকা মেরে দিয়েছে, তার হিসাব আছে? অনেক মানুষ রাস্তায় বসে গেছে। মন্ত্রীরা বলছেন, তারা দায় নেবে না। তাহলে অনুমতি দিলেন কেন? দায় নিতে হবে। কারণ আওয়ামী লীগ এতে জড়িত।

এদিকে, দুর্গাপূজা ও পরবর্তী সময়ে হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর হামলার ঘটনাকে সাম্প্রদায়িক নয় বরং ‘রাজনৈতিক দাঙ্গা’ হিসেবে আখ্যা দিয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। তিনি বলেন, এসব হামলার সঙ্গে প্রত্যক্ষভাবে আওয়ামী লীগ জড়িত।

গয়েশ্বর চন্দ্র বলেন, ‘সারা দেশে সাম্প্রদায়িক হামলার ঘটনায় দায়ের করা মামলাগুলোয় বিএনপি নেতাকর্মীদের টার্গেট করা হচ্ছে। সরকার এটার সঙ্গে জড়িত। এগুলো সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা নয়, রাজনৈতিক দাঙ্গা। সরকার হামলাকারীদের মোকাবিলা করা বা আইনের আওতায় এনে তাদের শাস্তি দেওয়া বা বিচার করার উদ্যোগ নেয়নি। সরকার ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের আড়াল করছে।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্দেশে বিএনপির স্থায়ী কমিটির এ সদস্য বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী বারবার ক্ষমতায় আসার মাধ্যমে গণতন্ত্রকে কলঙ্কিত করছেন। এখন ক্ষমতায় আছেন তাই কিছুই টের পাচ্ছেন না, যখন ক্ষমতা থেকে বিদায় নেবেন তখন বুঝবেন নিজের অবস্থান। যখন আইনের মারপ্যাঁচে পড়বেন তখন বুঝবেন।’

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category