বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২, ০৭:৫০ পূর্বাহ্ন

  • বাংলা বাংলা English English
বাঘায় ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে সংঘর্ষে পুলিশসহ আহত ২৮, পরে কমিটি ঘোষণা
বাঘা (রাজশাহী) থেকে মোস্তাফিজুর রহমান / ৮১ Time View
Update : বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২

বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ বাঘা উপজেলা শাখার ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে কেন্দ্রীয় নেতাদের সামনে দু‘গ্রুপে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় পুলিশসহ ২৮ নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। পরে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে গিয়ে পুলিশের পিকআপ ভাংচুর করা হয়েছে। এ সময় ১৫/২০ রাউন্ড টিয়ার সেল ছোঁড়ে পুলিশ।

সোমবার (২১ মার্চ) শাহদৌলা সরকারি কলেজ মাঠে সকাল ১১ টায় প্রথম অধিবেশনে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন শেষে মঞ্চে আমন্ত্রিত অতিথিরা আসন গ্রহন করেন। এর পর কোরআন তেলায়াত, গীতা পাঠ ও নেতাদের ফুল দিয়ে বরণ করে নেওয়া হয়।

পরে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। পরবর্তীতে পরিস্থিতি শান্ত হলে কমিটি গঠনের কার্যক্রম শুরু করা হয়। এতে সভাপতি পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম এমপি ও সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম বাবুল নির্বাচিত হয়েছেন।

জানা যায়, জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য ও বাঘা পৌর সভার সাবেক মেয়র আক্কাছ আলীর সমর্থকরা সম্মেলন মঞ্চের সামনে প্রবেশ করে আক্কাছ ভাই আক্কাছ ভাই বলে শ্লোগান দিতে থাকে।

এ সময় তাঁদের প্রতিহত করার চেষ্টা করলে, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব শাহরিয়ার আলম এমপির সমর্থক ও আক্কাছ আলীর সমর্থকরা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন।

এ সময় মঞ্চের উপরে চেয়ার ছুড়ে মারা, চেয়ার ভাংচুর, কাঠের বাটাম ,দেশীয় অস্ত্র, বাঁশের লাঠি ব্যবহার করা হয়। প্রায় আধা ঘন্টা এই সংঘর্ষ চলে । এ সময় সম্মেলনে আসা আগত লোকজন দৌড়া দৌড়ি ও ছুটা ছুটি করে সম্মেলন স্থল ত্যাগ করেন।

এ সংঘর্ষে আহত হয়েছে, একজন নেতার প্রেস সহকারি এমএসএ রেজা, পৌর আ’লীগের সভাপতি আব্দুল কুদ্দুস সরকার,শাহরিয়ার হোসেন,সিরাজুল ইসলাম,সাইফুর ইসলাম,মুরাদ হোসেন,লিটন ভুঁইয়া,আলম হোসেন,সুজন আলী , বাঘা থানার এসআই তৈয়ব আলী, জাহাঙ্গীর হোসেন, এএসআই সাজদার রহমান, পুলিশ সদস্য শাজাহান আলী, মতিউর রহমান, তাজুল ইসলাম, মনি হোসেনসহ অন্তত ২৮ জন। এর মধ্যে আহত পুলিশদেরকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্রে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। সাইফুল ইসলাম ও সিরাজুল ইসলামকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। অন্য আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

পরিস্থিতি শান্ত হলে ঘণ্টাখানেক পর হলে সম্মেলনের কার্যক্রম শুরু হয়। এতে সভাপতি পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম এমপি ও সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম বাবুল নির্বাচিত হয়েছেন।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব শাহরিয়ার আলম এমপির সভাপতিত্বে,সম্মেলন মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন প্রধান অতিথি বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এ, এইচ, এম খায়রুজ্জামান লিটন, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এস,এম কামাল হোসেন, সদস্য বেগম আখতার জাহান, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ রাজশাহী জেলা শাখার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শ্রী অনিল কুমার সরকার, রাজশাহী জেলা আ’লীগের সাধারন সম্পাদক আলহাজ্ব আব্দুল ওয়াদুদ দারা (সাবেক এমপি),যুগ্ন সাধাারন সম্পাদক এ্যাড. লায়েব উদ্দীন লাভলু প্রমুখ।

এ বিষয়ে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম এমপি বলেন, বিনা উস্কানীতে চলমান সমাবেশে প্রবেশ করে আক্কাছ আলী ও তাঁর লোকজন এসে হামলা করেছেন। আ.লীগের কেন্দ্রীয় নেতার সামনে অনেক নেতাকর্মীকে আহত করেছেন। এ বিষয়ে আইনী ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন তিনি।

এ বিষয়ে জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও বাঘা পৌরসভার সাবেক মেয়র আক্কাছ আলী বলেন, শান্তিপূর্ণ সম্মেলন শুরু হয়েছে। আমার নেতাকর্মীদের নিয়ে শ্লোগান দিতে দিতে সম্মেলন মঞ্চের সামনে দিয়ে যাচ্ছিলাম। এ সময় পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর লোকজন বাধা দেন। এতে এক পর্যায়ে সংঘর্ষ শুরু হয়।

এ বিষয়ে বাঘা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) সাজ্জাদ হোসেন বলেন, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে গিয়ে পুলিশের একটি পিকআপ গাড়ী ভাংচুর করা হয়েছে। এ সময় ১৫/২০ রাউন্ড টিয়ার সেল ছোঁড়ে পরিবেশ শান্ত করা হয়। এ ঘটনায় একজনকে আটক করা হয়েছে।

 

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
জনপ্রিয় সংবাদ
সর্বশেষ সংবাদ