সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৩:০০ অপরাহ্ন

  • বাংলা বাংলা English English
মুুক্তিযুদ্ধে ‘শ্রীপুর আঞ্চলিক বাহিনী’র সহ-অধিনায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা মোল্যা নবুয়ত আলীর স্মরণ সভা
মাগুরা থেকে লেনিন জাফর / ৮৬ Time View
Update : সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২

মাগুরার শ্রীপুর সরকারি এমসি পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয় মুক্তমঞ্চে ২৮মার্চ (সোমবার) বিকেলে ‘মুক্তিযুদ্ধে শ্রীপুর বাহিনী’র সহ-অধিনায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা মরহুম মোল্যা নবুয়ত আলীর স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শ্রীপুর উপজেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত এ স্মরণ সভায় উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল কালাম আজাদের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন মাগুরা-১ আসনের সংসদ সদস্য এ্যাড. সাইফুজ্জামান শিখর।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আফম আব্দুল ফাত্তাহ, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পঙ্কজ কুমার কুন্ডু, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আবু নাসির বাবলু, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মুন্সি রেজাউল হক, মাগুরা পৌর মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খুরশিদ হায়দার টুটুল, উপজেলা চেয়ারম্যান মাহমুদুুুল গনি শাহীন, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের সাবেক কমান্ডার ইকরাম আলী বিশ্বাস প্রমুখ।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও নাকোল ইউপি চেয়ারম্যান হুমাউনুর রশিদ মুহিতের সঞ্চালনায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন শ্রীকোল ইউপি চেয়ারম্যান কুতুবুল্লাহ হোসেন মিয়া কুটি, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি হাফিজুর রহমান, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হালিম মোল্যা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তাসিম বিল্লাহ সংগ্রাম, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের আহবায়ক খন্দকার আবু আনছার নাজাত আশা, দ্বারিয়াপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ জাকির হোসেন কানন, উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি নজরুল ইসলাম মোল্যা, উপজেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি মাহফুজুর রহমান, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক আলীনূর মোল্যা, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাজ্জাদ হোসেন, সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহিম সরদারসহ অন্যরা।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ্যাড. সাইফুজ্জামান শিখর এমপি মরহুম মোল্যা নবুয়ত আলীর বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক জীবন ও মুক্তিযুদ্ধে তাঁর অবদানের কথা তুলে ধরেন। তিনি আরও বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা মানুষের মুখ দেখেই মনের কথা বুঝতে পারেন। আর্ন্তজাতিক বাজারে অস্থিরতার কারণে বাংলাদেশে কিছু জিনিসের দাম বেড়ে যাওয়ায় তিনি সাথে সাথেই টিসিবির মাধ্যমে মাত্র ৪৬০ টাকায় এককোটি মানুষকে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category