মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২, ১১:১৬ অপরাহ্ন

  • বাংলা বাংলা English English
ময়মনসিংহে এসিল্যান্ড মিজানের অভিযানে ৫ একর সরকারি সম্পত্তি অবৈধ দখলমুক্ত
ময়মনসিংহ থেকে আরিফ রববানী / ৭১ Time View
Update : মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২

ময়মনসিংহ সদর উপজেলায় দীর্ঘদিনে জটিলতা নিরসন করে অবৈধভাবে দখলে থাকা ৫একর সম্পত্তির সরকারি জলমহাল উদ্ধার করা হয়েছে।

৩১ শে মার্চ দুপুরে উপজেলার কুষ্টিয়া ইউনিয়নের দরি কুষ্টিয়া গ্রামে বিপুল সংখ্যক পুলিশ সদস্য ও ভূমি অফিসে কর্মরত কর্মকর্তাদের সাথে নিয়ে সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রট এইচ. এম ইবনে মিজানের নেতৃত্বে অভিযান পরিচালনা করা অবৈধ ভূমি ক্ষেকুদের কবল থেকে উপজেলার একমাত্র জলমহলটি উদ্ধার করেন সহকারী কমিশনার ভূমি এইচ. এম ইবনে মিজান। যিনি সুযোগ পেলেই উপজেলার এক প্রান্ত থেকে অপর প্রান্তে ছুটে যান বিভিন্ন অভিযানে।

সুত্র মতে জানা যায়, ২ বছরের জন্য ময়মনসিংহ জেলা প্রশাসকের কাছ থেকে দড়ি কুষ্টিয়া মৎসচাষী সমবায় সমিতির পক্ষে সাধারণ সম্পাদক মোঃ আমিরুল ইসলাম লিজ গ্রহণ করেন। তবে লিজ গ্রহণের দীর্ঘ প্রায় ১বছর অতিবাহিত হলেও স্থানীয় প্রভাবশালী ভূমি খেকোর দাপটে কাগজে-কলমে লিজ পেলেও জলমহালটি ভোগ-দখল করতে পারেনি লিজ গ্রহিতা আমিরুল ইসলাম।

এ নিয়ে একাধিক শালিশ দরবার হলেও লিজ গ্রহিতার পক্ষে কোন ফলাফল আসেনি, এই নিয়ে দুপক্ষের মাঝে মামলা ও হামলার ঘটনাও ঘটেছে। দীর্ঘ প্রায় এক বছর পর আইনী জটিলতা সংশোধন করে ৩১শে মার্চ পুনঃরায় জলমহলটি ইজারাদার মোঃ আমিরুল ইসলামকে ভোগ দখল করার জন্য বুঝিয়ে দিয়েছেন উপজেলার দক্ষ ও মেধাবী সহকারী কমিশনার (ভূমি) এইচ.এম ইবনে মিজান। সহকারী কমিশনার ভূমির নেতৃত্বে পরিচালিত অভিযানে সহযোগিতায় ছিলেন-সরকারী জমি উদ্ধারে আরও অংশগ্রহণ করেন ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা আবু তাহের মোঃ অলি উল্লাহ, সার্ভেয়ার সেলিম হাসান, ময়মনসিংহ কোতোয়ালী মডেল থানার বিপুল সংখ্যক পুলিশ ও আনসার সদস্য সেই সাথে সদর ভূমি অফিসের অফিস সহকারী, মাজেদুর রহমান মাসুম, বিল্লাল হোসেন, আসাদুজ্জামান আসাদ, হারুণ, এহসান ও আব্দুল্লাহ।

অভিযান সপল করার পর ভোগ দখল বুঝিয়ে দেওয়ার সময় স্থানীয়দের মাঝে উপস্থিত ছিলেন, বিদ্যাগঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম বাবলু। এছাড়াও অত্র এলাকার বিপুল সংখ্যক গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গরা।

একই দিনে সহকারী কমিশনার (ভূমি) এইচ এম ইবনে মিজান সদর উপজেলার কিসমত দুলাল বাড়ি চর এলাকায় সরকারী আবাসন পল্লীতে মাদক সেবনকারী ও বখাটেদের উৎপাতের অভিযোগের ভিত্তিতে ময়মনসিংহ জেলা প্রশাসকের নির্দেশে মাদকসেবীদের আস্তানা ও অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করেন।

অপরদিকে ভূমি অফিস সুত্রে জানা গেছে- সহকারী কমিশনার (ভূমি) এইচ এম ইবনে মিজান এর বুদ্ধিমত্তায় ও দক্ষতায় ভূমি অফিসে জমে থাকা জমি সংক্রান্তের জটিলতা খাজনা-খারিজ, মিসকেইস, সংশোধন, পাহাড় পরিমাণ ফাইল জটিলতা সমাধান করে জনগণকে হয়রানি মুক্ত করছেন। দিনভর উপজেলার বিভিন্ন সমস্যা সমাধানে শত ব্যস্ততার মাঝেও কর্মবান্ধব এই সহকারী কমিশনার (ভূমি) দিবা-রাত্রি ভূমি সংশ্লিষ্ট সেবা দিয়ে সেবা গ্রহিতাদের মাঝে ব্যাপক সুনাম অর্জন করে চলছেন এসিল্যান্ড এইচ এম ইবনে মিজান। তার দক্ষতায় উপজেলা ভূমি অফিসে গড়ে উঠেছে শক্তিশালী টিম। যেই টিম স্বচ্ছ, দুর্ণীতিমুক্ত,জনবান্ধব উপজেলা প্রশাসন গড়ার লক্ষে সরকারের ভূমি সেবাকে জনকল্যাণে জনগণের দোরগোড়ায় পৌছে দিতে কাজ করছেন।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
জনপ্রিয় সংবাদ
সর্বশেষ সংবাদ