সোমবার, ১৬ মে ২০২২, ০১:৫১ অপরাহ্ন

  • বাংলা বাংলা English English
আমতলীতে জমিজমার বিরোধে প্রতিপক্ষের বাড়িতে হামলা ভাংচুর, আহত-৭
আমতলী (বরগুনা) থেকে মোঃ ইমরান হোসাইন / ৮৮ Time View
Update : সোমবার, ১৬ মে ২০২২

বরগুনার আমতলীতে জমিজমার বিরোধে প্রতিপক্ষের হামলায় শিশু নারীসহ ৭ জনকে কুপিয়ে জখম, ঘর ভাংচুর ও নগদ টাকা ও স্বর্নালংকার লুট করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ভূক্তভোগী আহত আলাউদ্দিন মীর এমন অভিযোগ করেন।

আহতদের আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার গভীর রাতে উপজেলার সোনাউঠা গ্রামে। আজ (রবিবার) দুপুরে আমতলী থানার ওসি একেএম মিজানুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

পুলিশ ও আহত সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার হলদিয়া ইউনিয়নের সোনাউঠা গ্রামের আলাউদ্দিন ও প্রতিবেশী মন্নান হাওলাদারের সাথে ১০ শতাংশ জমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে। শনিবার গভীর রাতে মন্নান হাওলাদারের নেতৃত্বে ২০ থেকে ৩০ জন মুখোশধারী সন্ত্রাসী ধারালো অস্ত্র ও লাঠিসোঠা নিয়ে আলাউদ্দিনের বাড়ীতে হামলা চালিয়ে নগদ ৩ লাখ টাকা ২টি মোবাইল ২ ভরি স্বর্নলংকার নিয়ে যায় বলে আলাউদ্দিন অভিযোগ করেন। এতে শিশু ইছা (১০), আলাউদ্দিন মীর (৪২), আউয়াল মীর (৪৫), মোশের্^দা বেগম (৩৫), ঝর্না (৩০), শাহিনুর (৪০) ও ফেরদৌসি আহত হয়। সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে আহতদের উদ্ধার করে আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসে। ওই হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাঃ তন্ময় হোসেন আহত ফেরদৌসি, আউয়াল মীর, মোশের্^দা ও ঝর্নাকে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরণ করেছেন। বাকীরা আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন। রবিবার দুপুরে আমতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম মিজানুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

আহত আলাউদ্দিন মীর বলেন, মন্নান হাওলাদারের নেতৃত্বে জাকির প্যাদা, সোবাহান ও আবুল হাসানসহ ২০ থেকে ৩০ জন ভাড়াটে মুখোশধারী সন্ত্রাসী ধারালো অস্ত্র নিয়ে আমার ঘর ভাংচুর করেছে এবং আমি ও পরিবারের শিশু নারীসহ ৭ জনকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করেছে। আমি এ ঘটনার বিচার চাই।

এ বিষয়ে জানতে অভিযুক্ত আঃ মন্নান হাওলাদারের ব্যবহৃত মুঠোফোনে একাধিকবার কল দিলেও তিনি ফোন রিসিফ করেননি।

আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক ডাঃ তন্ময় হোসেন বলেন, গুরুতর আহত ৪ জনকে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। অপর আহতরা আমতলী হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

আমতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম মিজানুর রহমান মুঠোফোনে বলেন, খবর পেয়ে রাতেই ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। আজ দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। এখনো কোন অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
জনপ্রিয় সংবাদ
সর্বশেষ সংবাদ