সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ০৯:০৭ অপরাহ্ন

  • বাংলা বাংলা English English
গড়ে দেখা যায় সেঞ্চুরি পূরণ বাংলাদেশের
ডেক্স রিপোর্ট: / ১০৭ Time View
Update : সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২

সেন্ট লুসিয়া টেস্টের চতুর্থ দিন নাটকীয় কিছু না হলে বড় হার নিশ্চিতই ছিল বাংলাদেশের। তবে দিনের শুরু থেকেই ভেজা আউটফিল্ড অপেক্ষা বাড়িয়েছে শুধু। প্রথম সেশনে মাঠে গড়াতে পারেনি একটি বলও। মধ্যাহ্নভোজের ঘণ্টা খানেক বাদে মাঠে নামার পর নাটকীয় কিছু করতে পারেনি বাংলাদেশ। প্রাপ্তি কেবল নুরুল হাসান সোহানের ঝড়ো হাফ সেঞ্চুরি।

মাঠে নেমে দিনের দ্বিতীয় বলেই স্লিপ কর্ডন দিয়ে দারুণ এক কাটে চার মেরে বাংলাদেশের রানের চাকা সচল করেন নুরুল হাসান সোহান। যদিও চতুর্থ ওভারেই ধাক্কা খেতে হয় বাংলাদেশকে। আলজারি জোসেফের লাফিয়ে ওঠা বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে আউট হন মেহেদী হাসান মিরাজ। এর ঠিক আগের বলেই লেগ সাইডে কাট করে চার মেরে নিজের রানের খাতা খোলেন এই ব্যাটার।

এরপর বাংলাদেশকে লিড এনে দিতে দায়িত্ব পুরোপুরি নিজের কাঁধে তুলে নেন সোহান। তিনি কেমার রোচের ওপর চড়াও হয়েছিলেন। মিড উইকেটের ওপর দিয়ে একটি ছক্কা ও স্ট্রেইট ড্রাইভে দারুণ একটি চারও হাঁকিয়েছেন তিনি। সোহান ঝড়ো ব্যাটিংয়ে রান বাড়ালেও তাকে বেশিক্ষণ সঙ্গ দিতে পারেননি এবাদত হোসেন।

তিনি জেইডেন সিলসের বলে টপ এজ হয়ে আউট হয়েছেন কোনো রান না করেই। শর্ট লেগে ফিল্ডিং করা রেমন্ড রেইফার দারুণ এক ডাইভিং ক্যাচে বল ধরেছেন। সেই ওভারেই শরিফুল ইসলামকে এলবিডব্লিউ করে ফেরান ক্যারিবীয় এই বোলার।

অবশ্য রিভিউ নিয়েছিলেন শরিফুল। টিভি রিপ্লেতে দেখা যায় বলে ব্যাটই লাগাতে পারেননি শরিফুল। ফলে আউট হয়েই মাঠ ছাড়তে হয় তাকে। এরপর খালেদ আহমেদকে নিয়ে ৪০ বলে হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেন সোহান। এরপর খালেদ রান আউট হয়ে ফিরলে বাংলাদেশের ইনিংস গুটিয়ে যায় ১৮৬ রানে। ফলে ওয়েস্ট ইন্ডিজের সামনে লক্ষ্য দাঁড়ায় মাত্র ১৩ রানের।

ছোটো লক্ষ্য তাড়ায় ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ১০ উইকেটের জয় এনে দিয়ে মাঠ ছেড়েছেন দুই ওপেনার জন ক্যাম্পবেল ও ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট। এর মধ্যে দিয়ে টেস্টে হারের সেঞ্চুরি পূরণ করে ফেলেছে বাংলাদেশ। এই রেকর্ডে বাংলাদেশের নামটা সবচেয়ে দ্রুততমও বটে।

টেস্ট হারের সেঞ্চুরি করতে এর আগে সবচেয়ে কম ম্যাচ লেগেছে নিউজিল্যান্ডের। তারা ২৪১ টেস্ট খেলে শততম হারের স্বাদ পেয়েছিল। বাংলাদেশ তা পেরিয়ে গেছে ১৩৪ টেস্টেই। আর সবচেয়ে বেশি সময় লেগেছিল অস্ট্রেলিয়ার। তারা ৩৭৪ ম্যাচ পর শততম হারের স্বাদ পেয়েছিল।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
জনপ্রিয় সংবাদ
সর্বশেষ সংবাদ