সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১২:২৯ অপরাহ্ন

  • বাংলা বাংলা English English
আঙুলের ছাপ না মেলায় ভোট না দিয়ে ফিরে গেলেন অনেকেই
রাজশাহী প্রতিনিধি: / ৬৫ Time View
Update : সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

রাজশাহীর বাঘা পৌর নির্বাচনে ভোট দিতে না পেরে ফিরে গেলেন অনেকেই। বৃহস্পতিবার (২৯ ডিসেম্বের) সকাল সাড়ে ৮টা থেকে বিকাল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত বিরতীহিনভাবে ভোট গ্রহন শেষ হওয়ার কথা থাকলেও বিকাল সাড়ে ৫টা পর্যন্ত চলছে ভোট গ্রহণ। বাঘা মডেল উচ্চ বিদ্যালয় ও বাঘা হযরত শাহ আবদুল হামিদ দানিশ মান্দ ফাজিল মাদ্রাসা এই দুই কেন্দ্রে ভোট দিতে না পেরে ১৪ ভোটাররা ফিরে গেলেন ।

জানা যায়, বাঘা মডেল উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোট দিতে এসে ফিরে গেলেন উত্তর মিলিকবাঘা গ্রামের সেকেন্দার আলী, মুনসুর রহমান, আবুল হোসেন, সাইফুল ইসলাম। এছাড়া বাঘা হযরত শাহ আবদুল হামিদ দানিশ মান্দ ফাজিল মাদ্রাসা কেন্দ্রে ১০ জন ফিরে গেছে বলে দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রিজাইডিং অফিসার মুনসুর আলী জানান। তিনি কারন হিসেবে জানান, ইভিএমের সেন্সর ঠিকমতো কাজ না করা, আঙুলের ছাপ না মেলায় এবং জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) কার্ডের নম্বরের সঙ্গে ভোটার তালিকার নম্বরের মিল না থাকায় এমন ঘটনা ঘটেছে। তিনি আরও জানান, নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ভোট গ্রহণ করা সম্ভব হয়নি। তবে নির্ধারিত সময়ের যারা ভোট কেন্দ্রের মধ্যে প্রবেশ করেন ভোট নেওয়া হয়েছে তাদের ।

মেয়র পদে উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও প্যানেল মেয়র শাহিনুর রহমান পিন্টু (নৌকা), জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও সাবেক মেয়র আক্কাছ আলী (জগ), পৌর জামায়াতের আমির সহকারি অধ্যাপক সাইফুল ইসলাম (নারিকেল গাছ), পৌর বিএনপির সভাপতি কামাল হোসেন (কম্পিউটার) এবং ইসরাফিল বিশ্বাস (মোবাইল ফোন) প্রতিদ্ব›দ্বীতা করছেন।
উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও সহকারি রিটারিং অফিসার মুজিবুল আলম বলেন, ১১টি কেন্দ্রে সকাল সাড়ে ৮টা থেকে বিকাল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত একটানা ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে। মোট ভোটার ৩১ হাজার ৬৬৯। এরমধ্যে পুরুষ ১৫ হাজার ৮১২ এবং নারী ১৫ হাজার ৮৫৭ জন। কিছু কেন্দ্রে যান্ত্রিক ত্রæটি ও ভোটারেদের হাতের ছাপ না মিলার কারনে কেউ কেউ ভোট দিতে পারেনি অনেকেই।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category