মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ০৭:১১ অপরাহ্ন

বন্যায় জনগণের ভোগান্তি দেখতে গিয়ে চড় খেলেন জনপ্রতিনিধি
আন্তর্জাতিক ডেস্ক / ১১৮ Time View
Update : মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪

বন্যাকবলিত এলাকায় স্থানীয়দের ভোগান্তির চিত্র দেখতে গিয়েছিলেন একজন জনপ্রতিনিধি। বন্যা শুরুর কয়েকদিন পর যাওয়ায় সেখানকার বাসিন্দারা তাকে ঘিরে ধরে বিক্ষোভ শুরু করেন। এ সময় তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন ধরনের অভিযোগও তোলেন তারা। এর মাঝেই ক্ষুব্ধ এক নারী কষে চড় বসিয়ে দেন ওই জনপ্রতিনিধির গালে।

ভারতের হরিয়ানা প্রদেশের এই ঘটনার একটি ভিডিও সম্প্রতি ভাইরাল হয়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। দেশটির বার্তা সংস্থা এএনআইয়ের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, হরিয়ানার জননায়ক জনতা পার্টির (জেজেপি) বিধায়ক ঈশ্বর সিংহ বুধবার নিজের বিধানসভা আসনের বন্যাকবলিত এলাকা পরিদর্শনে গিয়ে প্রতিবাদের মুখোমুখি হয়েছেন।

বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় যাওয়ার পর সেখানকার বাসিন্দাদের বিক্ষোভের মুখে পড়েন তিনি। এ সময় স্থানীয়রা বলেন, স্থানীয় প্রশাসনের তৈরি করা ছোট একটি বাঁধ ভেঙে পানি ঢুকে পড়েছে লোকালয়ে। এই বাঁধ নির্মাণে দুর্নীতির অভিযোগও তোলেন তারা। বাঁধটি ভেঙে যাওয়ায় হরিয়ানার ঘর্ঘরা নদীর পানিতে রাজ্যের বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত হয়েছে।

স্থানীয়রা বিধায়কের সাথে বাগবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়ার পর এক নারী ব্যাপক ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন। তিনি বিধায়কের দিকে এগিয়ে এসে প্রশ্ন করেন, ‘আপনি এখন কেন এখানে এসেছেন?’

ভিডিওতে দেখা যায়, প্রশ্নের জবাবে বিধায়ক কিছু বলার চেষ্টা করতেই তার গালে কষিয়ে চড় মারেন ওই নারী। তবে বিধায়ক তার বিরুদ্ধে আনা সব ধরনের অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তিনি বলেন, ‘ওই নারী বলছেন, বাঁধ ভেঙে গেছে। কিন্তু বাঁধটি আসলে ভেঙে যায়নি। তিনি (নারী) মিথ্যা দাবি করেছেন।

বিধায়ক ঈশ্বর সিংহ বলেন, আমি তাকে বোঝানোর চেষ্টা করছিলাম যে, প্রবল বৃষ্টির কারণেই এই দুর্যোগ। দেশটির সরকারি সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে তিনি বলেন, ওই নারীকে তিনি ক্ষমা করে দিয়েছেন। তাই এই ঘটনায় তিনি কোনও আইনি পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন না।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category