সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ০৪:২১ পূর্বাহ্ন

যেভাবে হামলা হয় পাকিস্তানের সেই সমাবেশে, নিহত বেড়ে ৪৬
আন্তর্জাতিক ডেস্ক / ১২৩ Time View
Update : সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪

পাকিস্তানের খাইবার পাখতুনখাওয়া প্রদেশে ভয়াবহ বোমা হামলার ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪৬ জনে। রোববার (৩০ জুলাই) উত্তর-পশ্চিম পাকিস্তানে জমিয়ত উলেমা-ই-ইসলাম-এফ (জেইউআই-এফ) নামক একটি দলের রাজনৈতিক সমাবেশে ওই বিস্ফোরণ হয়।

এদিকে রাজনৈতিক সমাবেশে বিস্ফোরণের দৃশ্যের একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ছে। সোমবার (৩১ জুলাই) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রাজনৈতিক সমাবেশে বিস্ফোরণ ও এর জেরে বিপুল সংখ্যক প্রাণহানির পর হামলার সময়কার একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। এতে দেখা যাচ্ছে, একটি বড় সমাবেশে বহু সংখ্যক দলীয় কর্মী উপস্থিত রয়েছেন এবং বিস্ফোরণের সময় তারা কোনও একজন নেতার বক্তব্য শুনছেন।

খাইবার পাখতুনখাওয়া প্রদেশের আফগান সীমান্তের কাছে অবস্থিত খারে সরকারি জোটের অংশীদার এই দলের সম্মেলনে আত্মঘাতী বোমা হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪৬ জনে। এই ঘটনায় আরও বহু মানুষ আহত হয়েছেন।

এদিকে অনলাইনে প্রচারিত অন্যান্য ভিডিও ক্লিপগুলোতেও দেখা যাচ্ছে, সমাবেশের জন্য তৈরি মঞ্চের কাছেই বিস্ফোরণের ঘটনাটি ঘটে যেখানে দলের বেশ কয়েকজন নেতা বসেছিলেন। সংবাদমাধ্যম বলছে, দলের একজন নেতা সমাবেশে উপস্থিত মানুষের সামনে কথা বলার সময় মঞ্চের ডান পাশে ওই বিস্ফোরণটি ঘটে।

বিস্ফোরণের ঘটনার পর ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্য করার চেষ্টা করেছিলেন আবদুল্লাহ খান নামে এক ব্যক্তি। বার্তাসংস্থা এএফপিকে তিনি বলেছেন, ‘বিস্ফোরণের পর তাঁবুটি একপাশে ভেঙে পড়ে। এতে করে যারা মরিয়া হয়ে পালানোর চেষ্টা করছিলেন তারা সেখানে আটকা পড়েন।’

সোমবার খাইবার পাখতুনখাওয়া পুলিশ জানিয়েছে, নিষিদ্ধ সন্ত্রাসী গোষ্ঠী আইএসআইএস এই হামলার পেছনে রয়েছে বলে প্রাথমিক তদন্তে ইঙ্গিত দেওয়া হয়েছে।

পুলিশ কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে জিও নিউজ জানিয়েছে, ‘আমরা এখনও বাজাউর বিস্ফোরণের বিষয়ে তদন্ত এবং তথ্য সংগ্রহ করছি। প্রাথমিক তদন্তে দেখা যাচ্ছে, নিষিদ্ধ সংগঠন দায়েশ (আইএসআইএস) এই হামলায় জড়িত রয়েছে।’

রোববারের ওই সমাবেশে চার শতাধিক নেতাকর্মী জড়ো হয়েছিলেন। জেলা পুলিশ অফিসার নাজির খানের উদ্ধৃতি দিয়ে সংবাদ সংস্থা পিটিআই জানিয়েছে, বিস্ফোরণের ঘটনার পর পুলিশ তিন সন্দেহভাজনকে হেফাজতে নিয়েছে।

প্রাদেশিক পুলিশ প্রধান আখতার হায়াত খান বলেন, সমাবেশে বিস্ফোরণ ঘটাতে ১০ কিলোগ্রাম বিস্ফোরক ব্যবহার করা হয়েছে। তিনি বলেন, সম্মেলনের সামনের সারিতে বসা ব্যক্তিদের মধ্যে বোমা হামলাকারীও ছিল।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
জনপ্রিয় সংবাদ
সর্বশেষ সংবাদ