মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ০৩:২৬ অপরাহ্ন

বাঘায় দা/ফ/নের পর কাফনের কাপড় চু*রি
স্টাফ রিপোর্টার: / ২২০ Time View
Update : মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪

রাজশাহীর বাঘায় সুকোদা বেওয়া নামের এক বৃদ্ধা নারির দাফন করা লাশ কবর থেকে উত্তোলন করে কাফন কাপড় চুরির অভিযোগ উঠেছে। শনিবার (২০ জানুয়ারি) দিবাগত রাতের কোন এক সময়ে কবর থেকে মৃত দেহ উত্তোলন করা হয়। উপজেলার আড়ানী পৌরসভার চকরপাড়া কবরস্থানে কাফনের কাপড় চুরির এই ঘটনা ঘটেছে। সুকোদা বেওয়া আড়ানী চকরপাড়া গ্রামের মৃত ছলেমান হোসেনের স্ত্রী। কাফনের কাপড় চুরি করতে কবর থেকে মরদেহ উত্তোলন করা হয়েছে বলে ধারনা করা হচ্ছে। বিষয়টি নিয়ে এলাকায় চা ল্যর সৃষ্টি হয়েছে।

স্থানীয় ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, আড়ানী পৌরসভার চকরপাড়া গ্রামে সুকোদা বেওয়া (৯০) বৃহস্পতিবার দুপুরে চকরপাড়া কবরস্থানে দাফন করা হয়। শনিবার ফজর নামাজ পরে তার মেজো ছেলে জমির উদ্দিন মায়ের কবরের কাছে যান। কববে দেওয়া বাঁশের ঘেরা বাঁশ সরানো ও কবর খোড়া দেখেন। পরে প্রতিবেশি লোকজন ও ভাইদের নিয়ে কবরস্থানে গিয়ে দেখেন কবরে লাশ নেই। আশেপাশে খোঁজ করে কবর থেকে প্রায় ৫০ মিটার উত্তর দিকে বাঁশের ঝাড়ে লাশ দেখতে পান। সেখানে দেখেন, যে কাপড় দিয়ে কবরে দাফন করা হয়েছিল, শরীরে কাফনের সেই কাপড় নেই।

তাদের ভাষ্য,৫ টুকরো কাফনের মধ্যে বড় দুই টুকরো চুরি করে নিয়ে গেছে। পরে বাজার থেকে কাফন কিনে ওই কবরে পুনরায় দাফন করা হয়েছে। কারা এ ধরনের কাজ করতে পারে তা নিয়ে এলাকায় চলছে বিস্তর আলোচনা সমালোচনা।
নিহতের মেঝ ছেলে জমির উদ্দিন জানান কাফন মাকে যেভাবে দাফন করা হয়েছিল, কবরের মধ্যে লাশ ছিলনা। বাঁশের ঝাড়ে লাশ পেলেও শরীরে কাফন ছিলনা। পরে বাজার থেকে পূনরায় কাফন কিনে শনিবার সকালে ওই কবরে তাকে দাফন করা হয়েছে।

আড়ানী পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও চকরপাড়া গ্রামের লিটন হোসেন বলেন, বিষয়টি জানার পর, কবরস্থানে গিয়ে দেখেন লাশ উঠানো এবং তার দাফন করা পুরো কাপড় শরীরে ছিলনা। এলাকার লোকজনের বরাদ দিয়ে তিনি জানান,কুসংস্কারপন্থী যাদুকরী কিংবা নেশা খোররা এ ধরনের কাজ করতে পারে বলে ধারনা করেছেন।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
জনপ্রিয় সংবাদ
সর্বশেষ সংবাদ