সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ০৬:০১ পূর্বাহ্ন

চৈত্র সংক্রান্তি উৎসবের পত্তন
ab71tv ডেক্স / ৪৩ Time View
Update : সোমবার, ২০ মে ২০২৪

উত্তপ্ত ধরায় সূর্যের পেট প্রশমন ও সু- বৃষ্টির আশায় কৃষিজীবি সমাজের হাতে চৈত্র সংক্রান্তি উৎসবের পত্তন। এক সময় গ্রামীণ জনপদের প্রধান উৎসব হলেও কালের প্রবাহে কবেই যেন সে ঠায় করে নেয় নগর জীবনেও হয়ে ওঠে এক লোকায়িত উৎসব। ধর্মের অনুষঙ্গ তাও আছে বৈকি সংস্কৃতি আর ধর্মের মেলবন্ধন। সনাতন ধর্মেও তো আছে সৃষ্টি আর প্রলয়ের যুগপৎ আরাধনা। হ্যাঁ চৈত্র সংক্রান্তি তার মূর্ত প্রতীক। পুরাতনের বিসর্জন পাশাপাশি নতুন কে আবাহনের তোড়জোড়। গাজনীর জৌলুশে এখন ভাটার টান তাই শহর অঞ্চলে ও দেখা যায় গাজনি ছবি। গাজন শব্দের উৎপত্তি গর্জন থেকে মতান্তরে সন্ন্যাসী দের হুংকারে শিব সাধনাই গাজন নামে প্রচলিত। গাজনের উল্লেখ মেলে মধ্যযুগের মঙ্গলকাব্যে ধর্মরাজ কে তুষ্ট করতে রানী রঞ্জা বতির গাজন পালনের কথা উল্লেখ আছে ধর্মমঙ্গলে। চৈত্র সংক্রান্তির বিশেষ আকর্ষণ চড়ক পূজা। ঋজু বৃক্ষ বা তার অভাবে একটি লম্বা বাঁশ পুঁতে চড়ক গাছ বানানো হয়। চড়ক উপলক্ষে বসে মেলা। পসরা সাজিয়ে বসে দোকানিরা তিলের খাজা, তালপাতার পাখা,মাটির সারস, এবং রংবেরঙের হাড়ি পাতিল। দিন বদলের হাওয়াই গাজনেও বদল এসেছে বৈকি, তবে এখনো গাজন সব বর্ণের মানুষের উৎসব। বাংলা বছর শেষে সব ভেদাভেদ ভুলে চৈত্র সংক্রান্তি রূপ নেয় এক মহামিলন মেলায়।

“সত্যরে লও সহজে আত্ম উপলব্ধি”। নতুন বছর আসছে আবার নতুন বছর আসছে। মনের ভেতর মনের কথা আনন্দে তাই হাসছে। নতুন বছর আসবে ঠিকই নতুন বছর আসবে।
আবার সবার মন নদীতে খুশির ভেলা ভাসবে। নতুন বছর আসছে বলেই মন খুশিতে নাচছে। অনেক নতুন পাবে জীবন বেশ ভালো টের পাচ্ছে।

এ মনের আকাশে বাতাসে কেবলই শুনছি বৈশাখের ডাক। শুনছি নতুন বছরের প্রতিধ্বনি।
কিন্তু বাস্তবতা এটাই আমরা বাংলা পঞ্জিকা না দেখে দিন তারিখ বলতে পারিনা।

 

লেখক- কলিম উদ্দিন

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
জনপ্রিয় সংবাদ
সর্বশেষ সংবাদ