শিরোনাম
চরভদ্রাসনে ইলিশ সম্পদ উন্নয়ন জনসচেতনতা সভা জনগন এর ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য লড়াই করছি : কাদের মির্জা টেকনাফে রিপোর্টার্স ইউনিটি’র কমিটি গঠিত ইতালিতে মৃত্যুবরণকারী দানা মিয়ার পরিবারবারকে আর্থিক সহযোগিতা করেছে ভৈরব সমিতি ভেনিস নেত্রকোণায় রোড সেফটির দাবীতে জেলা প্রশাসকের কাছে এআরএফবির স্মারকলিপি প্রধানমন্ত্রী সবসময় গরীবের সহায়তায় এগিয়ে আসেন-ময়মনসিংহে গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী শরীফ রোজা হবে ৩০টি: জানিয়েছে সৌদি আরব ত্রিশালের মঠবাড়ীতে চেয়ারম্যান কদ্দুসের দেওয়া ঈদের নতুন শাড়ী-লুঙ্গী পেয়ে খুশী গরীব-দুস্থরা অসহায় দরিদ্রদের ইফতার বিতরণ করলেন রফিকুল ইসলাম পিন্টু কলমাকান্দায় ঈদ উপহার বিতরণ করেছে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ইউটিসিএল
বুধবার, ১২ মে ২০২১, ০২:১৯ অপরাহ্ন

মাহে রমজান ও লকডাউন; নিত্যপণ্যসামগ্রী ও শাকসবজির দাম বৃদ্ধি তালা উপজেলায়

এস এম বাচ্চু, তালা(সাতক্ষীরা)প্রতিনিধি / ৩৩ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল, ২০২১

মাহে রমজান ও লকডাউনে গৃহবন্দি শহরের বাজারে এখন হাত ঠেকানোই দায় হয়েছে মধ্যবিত্তের। করোনা ভাইরাসের দাপটে স্বল্প সঞ্চয়ে দিন গুজরানের আশায় এবার পড়েছে টান।

এদিকে মাহে রজমান,মহামারী করোনা ভাইরাসের লকডাউন ও যোগান কম নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রী এবং শাকসবজির দাম বৃদ্ধি পেয়েছে অনেকটাই তালা উপজেলায়।

সাধারণ পরিস্থিতিতে প্রয়োজনীয় সামগ্রীর সরবরাহের ক্ষেত্রে কোনও সমস্যা দেখা দিলেও দাম বৃদ্ধি করেছেন খুচরা ও পাইকারী বিক্রেতারা। তাই দ্রব্যমূল্য শ্রমজীবী মানুষের ক্রয় ক্ষমতার বাইরে চলে যাচ্ছে ।

মঙ্গলবার (১৩ই এপ্রিল) সাতক্ষীরা জেলার তালা উপজেলা বিভিন্ন খুচরা বাজার ঘুরে দেখা গেছে, এসব নিত্যপণ্যের দাম পাইকারি বাজারের চেয়ে ৮ থেকে ১০ টাকা বেশি রাখা হচ্ছে।দেশি পেঁয়াজ ৪০ টাকা, ভারতের নাসিক পেঁয়াজ ৩৫ টাকা।

খুচরা বাজারে সয়াবিন তেল প্রতি লিটার বিক্রি হচ্ছে ১৩৫ টাকা, প্রতি কেজি চিনি ৭৭ থেকে, মোটা চাল ৪৫ টাকা, মিনিকেট চাল ৫৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। অপরিবর্তিত আছে মাংসের দাম। বেগুন ৪০ টাকা, শসা ২৫ টাকা, টমেটো ২৫ টাকা, লাউ ২০ টাকা, গাজর ২৫ টাকা, ঢেঁড়স ৪০ টাকা,কাঁচা মরিচ ৪০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে।

মাংসের বাজারে ব্রয়লার মুরগি প্রতি কেজি ১৪০ টাকা, দেশি মুরগি ৩০০ থেকে ৪৫০ টাকা, গরুর মাংস ৫৫০-৬৫০ টাকা, খাসির মাংস ৮০০-৯০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

মাছের বাজারে রুই ১৫০-২০০ টাকা, কাতাল ৩৫০-৪০০ টাকা, তেলাপিয়া ১৫০-২০০ টাকা, শিং ৮০০ টাকা, গলদা চিংড়ি ৬৫০ টাকা, ছোট চিংড়ি ৬০০ থেকে ৭০০ টাকা, মাঝারি আকারের ইলিশ মাছ ৮০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

তালার বাজারে ব্যবসায়ীরা বলছেন,করোনা ভাইরাসের কারণে যানবাহন বন্ধ থাকায় বাইরে থেকে কোন মালামাল আমদানি হচ্ছে না।সরবরাহ কম থাকায় পন্যের দাম বাড়ছে।

তালা বাজারে আসা কর্মজীবী শহিদুল ইসলাম বলেন,গত সপ্তাহের তুলনায় নিত্যপণ্যের দাম কেজিতে ৮ থেকে ১০ টাকা বেড়ে গেছে। মাছের দামও বেশি রাখা হচ্ছে। আয়ের চেয়ে ব্যয় বেশি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

বাংলাদেশে কোরোনা

সর্বশেষ (গত ২৪ ঘন্টার রিপোর্ট)
আক্রান্ত
মৃত্যু
সুস্থ
পরীক্ষা
সর্বমোট